কথা বলার জড়তা কাটিয়ে ওঠার উপায়

কথা আমরা সকলেই কম বেশি বলতে পারি। কিন্তু মঞ্চে উঠে কয়জন ঠিকমতো পারেন সেটা? বেশির ভাগ মানুষই স্বতঃস্ফূর্ত হতে পারেন না মাইক্রোফোন হাতে। চলুন জেনে নেয়া যাক কী করলে মানুষের সামনে এতটুকু বিব্রত না হয়ে নিজেকে চমৎকারভাবে উপস্থাপন করতে পারবেন সবার সামনে।
১. কারণ খুঁজে বের করুন-
একটু খেয়াল করলেই বুঝবেন, আপনার কথার জড়তা ঠিক তখনই আসে যখন আপনি অনেক মানুষের সামনে বা বিশেষ কোন পরিস্থিতিতে কথা বলতে হয়। হঠাৎ করেই একটা কিছু গোলমাল হয়ে গিয়ে পুরো মনোভাবটাই অসম্পূর্ণভাবে প্রকাশ করে ফেলেন তখন আপনি। যেটা তৈরি করে যোগাযোগ বিচ্ছিন্নতা। অর্থাৎ, আপনি যেটা বলতে চাইছেন, সেটা না বুঝে শ্রোতা অন্য কিছু বোঝে। মূলত এটা ঘটে থাকে মানসিক চাপ, অস্থিরতা, দুঃশ্চিন্তা আর অস্বস্তির ফলে।
২. ভুল খুঁজে বের করুন-
কথা বলার সময় সাধারণত কোন ভুলগুলো আপনি বেশি করেন সেটা জানার চেষ্টা করুন। এক্ষেত্রে নিজের উপস্থাপনাকে রেকর্ড করে নিতে পারেন। এতে করে পরবর্তীতে বারবার সেটা শুনে নিজের সমস্যার জায়গাটা চিহ্নিত করা সহজ হবে। যদি এমনটা হয় যে আপনি বারবার আ আ আ বলছেন কারণ আপনি জানেন না যে এরপর কি বলতে হবে তাহলে চেষ্টা করুন পরবর্তীতে ঐ অদ্ভুত আওয়াজের সময়গুলোতে চুপ থাকার। ঠিক এমনভাবেই নিজের খুঁতগুলোকে বেছে ফেলে সেগুলো শুধরানোর চেষ্টা করুন।
৩. প্রস্তুতি নিন-
কোন বিষয়ে কিছু বলতে গেলে বারবার সেটার খুঁটিনাটি মনের ভেতরে নিয়ে নিন। আগেই মানসিকভাবে প্রস্তুতি নিয়ে নিন। মানুষ সেখানেই আটকে যায় যেখানটা তার মনে পড়ে না। আর কোনো কিছু তখনই মনে পড়ে না যখন সেটা ভালোভাবে জানা না হয়। আর তাই যা নিয়ে বলতে চাইছেন সেটা ভালো করে জেনে নিন এবং নিজের আটকে যাওয়ার জায়গাগুলো সম্পর্কে সচেতন থাকুন। সেসব জায়গায় বলা শুরু করার আগেই নিজেকে প্রস্তুত করে নিন থামার জন্যে। খানিকটা থেমে তারপর আবার শুরু করুন।
৪. বাক্য তৈরি করুন-
কোন ধরনের অন্তর্বর্তীকালীন শব্দ যেমন- উমম, আআআ ইত্যাদি না বলে চেষ্টা করুন কিছু বাক্যকে সাজিয়ে রাখতে। এই যেমন- এরপর আমরা যেটা নিয়ে আলোচনা করবো তা হচ্ছে… কিংবা এবার পরবর্তী বিষয়ে যাওয়া যাক… ইত্যাদি। উমম বা আআআ ধরনের শব্দগুলো শ্রোতাদেরকে খুব সহজেই বুঝিযে দেবে যে বক্তব্যটি নিয়ে আপনি আসলেই ততোটা জানেন না। কিন্তু এ ধরনের বাক্য ব্যবহার করলে পরের ব্যাপারটি ভাবার সময় আর সামনের মানুষগুলোর শ্রদ্ধা দুটোই পাবেন আপনি।
৫. চোখের দিকে তাকান-
কথা বলার সময় সামনের মানুষগুলোর চোখের দিকে তাকান এবং তাদের সঙ্গে আই কন্ট্যাক্ট করার চেষ্টা করুন। এতে করে আপনি যেমন স্বতঃস্ফূর্ততা ফিরে পাবেন, তেমনি মনযোগী করতে পারেন দর্শকদেরকেও। এটা ভেবে দেখুন যে যখন আপনি বুঝবেন সামনের মানুষটি আপনাকে শুনছে এবং তাকে লক্ষ্য করেই আপনার কথাগুলো বলছেন আপনি, তখন খানিকটা অস্বস্তিবোধ আপনা আপনিই দূর হবে। – See more at:

You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

England 184/10 & 235/6 * v Pakistan 363/9

Armed Police Force Club 166/4 * v Province Number 4 239/9

Province Number 6 77/10 * v Province Number 7 125/10

Matabeleland Tuskers 39/4 * v Mid West Rhinos

Rising Stars 159/5 * v Mountaineers

Leicestershire v Yorkshire

Northamptonshire v Durham

Nottinghamshire v Warwickshire

Worcestershire v Lancashire

Essex v Surrey

Gloucestershire v Sussex

Hampshire v Kent

Somerset v Middlesex

Chennai Super Kings v Sunrisers Hyderabad