গৌরবের দিন আজ

আজ ১৬ ডিসেম্বর। বাঙালির গৌরবের দিন, বিজয়ের দিন। মাথা উঁচু করে দাঁড়ানোর অনন্য মহান দিন। আজ থেকে ৪৪ বছর আগে একাত্তরের এই দিনে বাঙালি তাদের অধিকার প্রতিষ্ঠা করেছিল অনেক ত্যাগের বিনিময়ে। বিশ্ব দরবারে মাথা তুলে বাঙালি জাতি জানান দিয়েছিল সব অত্যাচার-নির্যাতন ও হুমকি-ধমকির।
দীর্ঘ ৯ মাস রক্তক্ষয়ী মুক্তিযুদ্ধ, ৩০ লাখ শহীদ ও ২ লাখ মা-বোনের সম্ভ্রমের বিনিময়ে ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর বাঙালি জাতি চূড়ান্ত বিজয় লাভ করে। ২৪ বছরের লড়াই সংগ্রামের ধারাবাহিকতায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের নির্দেশ ও নির্দেশনায় বাঙালি জাতি বিশ্ব দরবারে দেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্বের গৌরবময় ঘোষণা দেয় ১৯৭১ সালের এই দিনে। এ দিন আনন্দময় বিজয়ের দিন। একই সঙ্গে স্বজন হারানোর বেদনায় বিহ্বল হওয়ার দিন। তাই এদিনটি বাঙালির জীবনের মহান একটি দিন।
বিজয় অর্জনের দীর্ঘ ৪৪ বছর পর এবারের বিজয় দিবস বাঙালি জাতির জীবনে এসেছে প্রাপ্তির আনন্দ নিয়ে। যুদ্ধাপরাধীদের ফাঁসি কার্যকরের আনন্দ নিয়ে এবারের বিজয় দিবস পালন করবে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ধারণকারী প্রতিটি মুক্তমনা বাঙালি।
একাত্তরের ৩ মার্চ পাকিস্তান জাতীয় পরিষদের অধিবেশন ডাকার পরে পাকিস্তানের সামরিক শাসক ইয়াহিয়া খান তা স্থগিত করে দেন। তার এ ঘোষণা বাঙালিদের মাঝে বিদ্রোহের আগুন জ্বলে ওঠে। বীর বাঙালি শুরু করে চূড়ান্ত প্রতিরোধ আন্দোলন। দেশজুড়ে সেøাগান ওঠে ‘বীর বাঙালি অস্ত্র ধরো, বাংলাদেশ স্বাধীন করো’, ‘পিন্ডি না ঢাকা, ঢাকা ঢাকা’ ‘তোমার আমার ঠিকানা, পদ্মা-মেঘনা-যমুনা’। ৭ মার্চ ঐতিহাসিক রেসকোর্স ময়দানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বাধীনতার ডাক দিয়ে ঘোষণা করলেন, ‘এবারের সংগ্রাম মুক্তির সংগ্রাম, এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম।’ শুরু হয় সারাদেশে গণমানুষের সর্বাত্মক অসহযোগ আন্দোলন। ‘জয়বাংলা’ ধ্বনিতে সাত কোটি বাঙালি একাত্ম হয়ে সর্বাত্মক সংগ্রামের প্রস্তুতি নিতে শুরু করে। এরই মাঝে ২৫ মার্চ বর্বর পাকহানাদার বাহিনী গণহত্যা শুরু করে। ২৬ মার্চ প্রথম প্রহরে বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতার ডাক দিলেন। তার এ আহ্বানের পরে বাঙালি জাতি মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়ে। ১৯৭১ সালের ১৭ এপ্রিল কুষ্টিয়ার বৈদ্যনাথতলায় গঠিত হয় অস্থায়ী বাংলাদেশ সরকার। এই সরকারই মুক্তযুদ্ধ পরিচালনা করে।
১৬ ডিসেম্বর বিকেল ৪টা ৩১ মিনিটে তৎকালীন রেসকোর্স ময়দানে (বর্তমান সোহরাওয়ার্দী উদ্যান) সম্মিলিত বাহিনীর প্রধান জেনারেল জগজিৎ সিং অরোরা ও বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনী ডেপুটি চিফ অব স্টাফ এ. কে. খন্দকারের উপস্থিতিতে আনুষ্ঠানিকভাবে আত্মসমর্পণ করেন জেনারেল নিয়াজি। আত্মসমর্পণের দলিল অনুসারে ৯১ হাজার ৪৯৮ জন পাকিস্তানি সৈন্য ও তাদের সহযোগী এবং পরিবার আত্মসমর্পণ করেছিল।
এদিন মুজিবনগর থেকে প্রধানমন্ত্রী তাজউদ্দিন আহমেদ বাংলাদেশের পক্ষ থেকে ভারত সরকার, মিত্রবাহিনী, মুক্তিবাহিনীর গৌরবজনক ভূমিকার জন্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। এছাড়া সর্বত্র শান্তি ও শৃঙ্খলা বজায় রাখার আহ্বান জানানো হয়।
বিজয়ের এই দিনে বাঙালি জাতি সশ্রদ্ধ চিত্তে স্মরণ করবে মুক্তিযুদ্ধে শহীদ বীর সন্তানদের। সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে তেজগাঁও পুরনো বিমানবন্দর এলাকায় সশস্ত্র বাহিনীর ৩১ বার তোপধ্বনির মাধ্যমে সূচিত হবে বিজয় দিবসের কর্মসূচি। আজ সরকারি ছুটির দিন। সাভারে জাতীয় স্মৃতিসৌধে নামবে জনতার ঢল। বাড়ি, গাড়িতে উড়বে নানা আকৃতির জাতীয় পতাকা। সরকারি ও আধাসরকারি সব ভবনসহ বেসরকারি বিভিন্ন ভবনেও জাতীয় পতাকা উড়বে। রং বেরঙের আলোকসজ্জায় সাজবে বিভিন্ন ভবন।
দেশের বিভিন্ন সরকারি হাসপাতাল, কারাগারে উন্নত মানের খাবার পরিবেশন করা হবে। সংবাদপত্রগুলো বিশেষ সংখ্যা প্রকাশ করেছে এবং বেতার ও টিভি চ্যানেলগুলোতে সম্প্রচার হবে বিশেষ অনুষ্ঠানমালা। আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জাতীয় পার্টিসহ দেশের প্রগতিশীল সব রাজনৈতিক দল, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন, গণজাগরণ মঞ্চসহ বিভিন্ন সংগঠন নানা কর্মসূচি পালন করবে। এছাড়া বাংলাদেশ সেনাবাহিনী, বাংলাদেশ নৌবাহিনী, বাংলাদেশ বিমান বাহিনী, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরসহ বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি ও স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠান বিজয় দিবসের কর্মসূচি পালন করবে।
বিজয় দিবস উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বিরোধীদলীয় নেতা জাতির উদ্দেশে পৃথক বাণী দিয়েছেন।

You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Essex 206/10 v Nottinghamshire 380/10 & 35/1 *

Glamorgan 283/10 v Derbyshire 207/3 *

Kent 359/6 & 197/10 * v Warwickshire 125/10

Leicestershire/1 & 427/10 * v Middlesex 233/10

Surrey 459/10 v Somerset 180/10 & 18 *

Sussex 552/10 v Durham 202/4 *

Worcestershire 361/4 & 247/10 * v Lancashire 130/10

Northamptonshire 282/10 v Gloucestershire 155/5 & 62/10 *

Hampshire 153/3 * v Yorkshire 350/10

England 100 * v Australia 310/8