গ্রামে গ্রামে ভোটের হাওয়া

ভোট আয়োজনের পরিকল্পনা নিয়ে প্রস্তুতি শুরু করেছে নির্বাচন কমিশন। এ লক্ষ্যে স্থানীয় সরকার বিভাগ থেকে দেশের সাড়ে চার হাজার ইউপি’র হালনাগাদ ভোটার তালিকা সংগ্রহ করেছে নির্বাচন আয়োজনকারী প্রতিষ্ঠানটি। এর আগে ডিসেম্বরে পৌরসভার নির্বাচন করতে প্রস্তুতি নিচ্ছে নির্বাচন কমিশনার। আর আসন্ন পৌরসভা ও ইউনিয়ন নির্বাচন ঘিরে গ্রামে গ্রামে বইতে শুরু করেছে নির্বাচনী বাতাস। রাজশাহী জেলায় ১৪টি পৌরসভা ও ৭১টি ইউনিয়ন সরব হয়ে উঠছে নির্বাচনের আগাম প্রচারণায়।
ইউপি’র নির্বাচন ঘিরে রাজশাহীর পবা উপজেলার ৮টি ইউনিয়নের পাড়া মহল্লা, গ্রামে গ্রামে হাট বাজারে আলাপ আলোচনা ও নির্বাচনি বাতাস ধীরে থেকে ক্রমেই দ্রুত গতিতে বৃদ্ধি পাচ্ছে। পোষ্টার, ব্যানার ও প্লেকার্ডে শোভা পাচ্ছে ঈদ ও পুজা উৎসব উপলক্ষে এলাকাবাসিকে সালাম ও অভিনন্দন। নিজ নিজ পদে প্রার্থী জানান দিয়ে চলছেন তারা। ফলে ভোটের গুঞ্জন সরব হতে চলছে নির্বাচনি মাঠ।
আগামী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করার লক্ষে কেউ কেউ গত নির্বাচনের পর থেকেই মাঠ গোছাচ্ছেন। আবার কেউ কেউ দলীয় মনোনয়ন ও সমর্থনের অপেক্ষায় আছেন। পাশাপাশি তারা দলীয় সমর্থন ও মনোনয়ন পাওয়ার আশায় দৌড় ঝাপ শুরু করেছেন। সেই লক্ষে নিজ নিজ দলের উপজেলা পর্যায়ের নেতা এমনকি স্থানীয় সংসদ সদসস্যের কাছে ধর্না দিচ্ছেন এবং যোগাযোগ রক্ষা করে চলেছেন।
আটটি ইউনিয়ন দর্শনপাড়া, হুজুরীপাড়া, দামকুড়া, হরিপুর, হরিয়ান, হড়গ্রাম, পারিলা ও বড়গাছি এবং দুইটি পৌরসভা নওহাটা ও কাটাখালি নিয়ে পবা উপজেলা। এরমধ্যে দর্শনপাড়া ইউনিয়নে আওয়ামীলীগ সমর্থিত প্রার্থী কামরুল হাসান রাজ, বর্তমান চেয়ারম্যান ও বিএনপির বিদ্রোহী প্রার্থী রমজান আলী, গতবারের বিএনপির সমর্থিত প্রার্থী শাহাদত হোসেন হাবিব, ইউপি সদস্য সুলতান আহমেদ চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হিসেবে গণসংযোগ করছেন এবং নিজেদের প্রার্থীরা জানান দিচ্ছেন।
হুজুরীপাড়া ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা গোলাম মোস্তফা, গতবারের নির্বাচনে নিকটতম প্রার্থী ও নওহাটা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারি প্রধান শিক্ষক আকতার ফারুক, বিএনপি’র সমর্থিত প্রার্থী ও সাবেক চেয়ারম্যান জাইদুল ইসলাম, পবা উপজেলা আওয়ামী লীগের নির্বাহী কমিটির সদস্য ও সাবেক চেয়ারম্যান দেওয়ান রেজাউল করিম আগামী নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হিসেবে মাঠে আছেন।
দামকুড়া ইউনিয়নে সর্বাধিক প্রার্থী আগামী নির্বাচনে মাঠে নিজেদের জানান দিচ্ছেন। এরা হলেন বর্তমান চেয়ারম্যান ও নাদিম গ্রুপের উপজেলা বিএনপির সভাপতি শাহজাহান আলী, সাবেক চেয়ারম্যান ও মিজানুর রহমান মিনুর গ্রুপের সভাপতি আব্দুস সালাম, উপজেলা যুবলীগ সহ-সভাপতি রেজাউল করিম বাবু, উপজেলা আওয়ামী লীগ দপ্তর সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, উপজেলা সাবেক যুবলীগ সভাপতি ফারুক হোসেন ডাবলু, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি রফিকুল ইসলাম, জামায়াত সমর্থিত আতাউর রহমান এবং ইউপি সদস্য আনারুল ইসলাম।
পবার হরিপুর ইউনয়নেও নির্বাচনের মৃদু হাওয়া বইতে শুরু করেছে। প্রকাশ্যে ও আলোচনায় প্রার্থীতা জানান দিচ্ছেন এরা হলেন, বর্তমান চেয়ারম্যান ও বিএনপি নেতা নজরুল ইসলাম, সাবেক চেয়ারম্যান বজলে রেজবি আল হাসান মঞ্জিল, নাজমুল হোসেন এবং ইউপি সদস্য ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সাইদুর রহমানের নাম জোরেশোরে শুনা যাচ্ছে।
পারিলা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের ভোট উপজেলার মধ্যে সবচেয়ে বেশী। গত নির্বাচনে উপজেলায় শুধু ২টি ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী বিজয়ী হন। এর মধ্যে পারিলা ইউনিয়ন একটি। আগামী নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে নিজেকে জানান দিচ্ছেন বর্তমান চেয়ারম্যান সাইফুল বারী ভুলু, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সোহরাব হোসেন, বিএনপি সমর্থিত মুনসুর রহমান, জামায়াত গোলাম আজম ও স্বতন্ত্র প্রার্থী জামাল হোসেন।
উপজেলার বড়গাছি ইউনিয়নে বিএনপি’র ভোটার বেশী হলেও নাদিম মোস্তফা ও মিজানুর রহমান মিনুর হস্তক্ষেপের কারণে এখানে বিএনপির অবস্থা অনেকটা নাজুক। অভিযোগ আছে বর্তমান চেয়ারম্যান নিজের দলের নেতৃবৃন্দের কাছে থেকে অনেকটা দুরে অবস্থান করছেন। যে কারণে এখানে বিএনপির একাধিক প্রার্থী হওয়ার সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। সেক্ষেত্রে আওয়ামী লীগের একক প্রার্থী হলে আগামী নির্বাচনে আওয়ামী লগি সমর্থিত প্রার্থীই বিজয়ী হবেন বলে এলাকাবাসি ধারনা করছেন। এই ইউনিয়নে চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে মাঠে আছেন বর্তমান চেয়ারম্যান সোহেল রানা, উপজেলা যুবলীগ সভাপতি এমদাদুল হক এমদাদ, ইউনিয়ন আওয়াম লীগ সভাপতি ও সাবেক চেয়ারম্যান মোবারক আলী, সাধারণ সম্পাদক ফারুক হোসেন অভি, বিএনপির জেকের আলী, আব্দুর রহমান, উদিয়মান বিএনপি নেতা সুলতান আহমেদ।

You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Essex 206/10 v Nottinghamshire 380/10 & 35/1 *

Glamorgan 283/10 v Derbyshire 207/3 *

Kent 359/6 & 197/10 * v Warwickshire 125/10

Leicestershire/1 & 427/10 * v Middlesex 233/10

Surrey 459/10 v Somerset 180/10 & 18 *

Sussex 552/10 v Durham 202/4 *

Worcestershire 361/4 & 247/10 * v Lancashire 130/10

Northamptonshire 282/10 v Gloucestershire 155/5 & 62/10 *

Hampshire 153/3 * v Yorkshire 350/10

England 100 * v Australia 310/8